অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবিতে চট্টগ্রামে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

সংবাদ প্রেরক,
জহিরুল ইসলাম

শিক্ষাজীবন বাঁচাতে অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবিতে ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বৃদ্ধির সন্তকে প্রত্যাখ্যান করে আজ সোমবার বেলা ১১ টায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে সারাদেশের মতো চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী জহিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রাজেশ্বর দাশ গুপ্ত, নাসরিন আক্তার, ঋজু , সুখী কুমার, ধ্রব, ওসমান ও ইমন, বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইফুর রুদ্র, চট্টগ্রাম সিটি কলেজের শিক্ষার্থী প্রান্ত বড়–য়া ও শাহেদুল ইসলাম, সরকারি কমার্স কলেজের শিক্ষার্থী রকেট দাশ রকি, আগ্রাবাদ মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী আবিধা ফাইরুজ, মেডিকেল কলেজ পরীক্ষার্থী ইমন সহ আরো অনেকে।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, “দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন আজ বিপন্ন, ভবিষ্যত জীবন অনিশ্চিয়তার মুখে। তারা দীর্ঘ সেশনজট সহ নানা রকম সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। সরকার করোনার দোহায় দিয়ে বারবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বৃদ্ধি করছে। গত মার্চ মাসে যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবীতে আন্দোলন শুরু হয়,তখন সরকার ঘোষণা করেন সবাইকে টিকার আওতায় এনে ১৭ মার্চ হল ও ২৪ মার্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিবেন। কিন্তু আমরা দেখলাম দীর্ঘ দুইমাস সময় পেয়েও সরকার শিক্ষার্থীদের টিকা দিতে পারেনি।”

শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, “করোনায় কোনো কিছুই থেমে নেই, থেমে আছে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক কর্মসূচি, হাটবাজার-মার্কেট থেকে শুরু করে গণপরিবহন সবকিছুই চলমান আছে। সরকারের সারা দেশের কোটি কোটি শিক্ষার্থীদেও শিক্ষাজীবন বাঁচানো ও করোনাকালের ক্ষতি কাটিয়ে তোলার ব্যাপারে সরকারের উদাসীনতা গোটা দেশের ভবিষ্যতকেই অনিশ্চিত করে তুলবে।” মানববন্ধন থেকে শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ২৯ মে পর্যন্ত বন্ধ রাখার শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণাকে প্রত্যাখ্যান করেন। এবং অতিদ্রত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবী জানান।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *